September 28, 2022

কুড়িগ্রাম সদরের ধরলা ব্রীজের পূর্ব প্রান্তে সৈয়দ ফজলুল করিম (রহ.) জামিয়া ইসলামিয়া মাদরাসা মাঠে শুরু হওয়া তিন দিনের ইজতেমার শেষ দিন ছিল শুক্রবার। এদিন জুমার নামাজে ইজতেমা ময়দানে লাখো মানুষের ঢল নামে।

বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির ব্যানারে আয়োজিত এ ইজতেমায় জুমার নামাজে ইমামতি করেন চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। নামাজ শেষে বিশ্ব মানবতার মুক্তি কামনায় দোয়া করা হয়।

এদিকে তিন দিনের ইজতেমার আখেরি মোনাজাত শনিবার সকালে হওয়ার কথা থাকলেও ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের কারণে

শুক্রবার রাতে এশার নামাজের পর আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। জুমার নামাজের আগে মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীমের ছোট ভাই মুফতি ইসাহাক আবুল খায়ের।

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল বাতেন সরকার জানান, জুমার নামাজের খুদবা পাঠ এবং নামাজে ইমামতি করেন চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। লাখো মানুষের উপস্থিতিতে জুমার নামাজ আদায় করা হয়।

চেয়ারম্যান বলেন,‘ ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আখেরি মোনাজাতের সময় এগিয়ে নিয়ে শুক্রবার রাতে এশার নামাজ শেষে আখেরি মোনাজাত করা হয়। চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম মোনাজাতে নেতৃত্ব দেন। দোয়ায় বিশ্ব মানবতার কল্যান কামনা করে আল্লাহর সহায়তা ও রহমত প্রার্থনা করা হয়।’

এর আগে গত বুধবার বাদ যোহর লাখো মুসল্লিদের অংশগ্রহণে শুরু হওয়া তিন দিনের এ ইজতেমায় উদ্বোধনী বয়ান করেন চরমোনাই পীর মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

সুজন/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.