কপিলের গানের প্রশংসায় পূজা ভাট

গায়ক হিসেবেও কপিল শর্মা অনন্য। জনপ্রিয় এই কৌতুক অভিনেতার গায়কীতে মুগ্ধ হয়ে প্রশংসা করেছেন অমিতাভ বচ্চন থেকে শুরু করে দীপিকা পাড়ুকোন-এর মতো বড় তারকারা। নিজের কমেডি শো-তে তো বটেই, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মঞ্চে সঞ্চালনা করার ফাঁকে মাঝে-মধ্যেই দু’কলি গেয়ে উঠে দর্শকদের মুগ্ধ করেন কপিল। কপিলের গায়কীতে মুগ্ধ হলেন এবার অভিনেত্রী-পরিচালক পূজা ভাট।

‘ধামাকা’ ছবির প্রচার করতে কার্তিক আরিয়ান, ম্রুণাল ঠাকুরের সঙ্গে অম্রুতা সুভাষও এসেছিলেন কপিলের শো-তে। সেখানেই গল্প-আড্ডার ফাঁকে ওই বলি-অভিনেত্রীর সঙ্গে ‘আঁধি’ ছবির ‘তেরে বিনা জিন্দেগি সে কোই শিকওয়া তো নেহি’ গানটি গেয়ে ওঠেন কপিল। কিশোর কুমার এবং লতা মঙ্গেশকরের গাওয়া এই গানটি আজও জনপ্রিয়। কপিলের সঙ্গে তার গাওয়া ওই গানটির ভিডিয়ো টুইট করেন অম্রুতা। আর সেখানেই গানটি শুনে পূজার এত ভালো লাগে যে তিনি ‘ধামাকা’ অভিনেত্রীর পোস্টটি রিটুইট করেন।

পোস্টটি শুধুমাত্র শেয়ার করেই থেমে থাকেননি পূজা। ভূয়সী প্রশংসায় তিনি ভরিয়ে দেন কপিল এবং অম্রুতাকে। কপিলের এই গান শুনে ভালোলাগায় তার শরীরে যে ‘কাঁটা ফুটেছে’ সেকথাও জানাতে ভোলেননি পূজা। সঙ্গে ‘দ্য কপিল শর্মা শো’-এর উদ্দেশে তার অনুরোধ, ‘তুমি একজন অসাধারণ গায়ক। আরও বেশি করে তোমার গাওয়া গান শুনতে চাই’।

পূজার কথা শুনে বলাই বাহুল্য দারুণ খুশি হয়েছেন কপিলও। নিজের চিরাচরিত ঢংয়ে পূজাকে ধন্যবাদ জানিয়ে মজার সুরে কপিল লেখেন, ‘অনেক অনেক ধন্যবাদ পূজাজি। আমি জানি এটা সত্যিই আপনি, তবু কী জানেন তো ‘দিল হ্যায় কী মানতা নেহি’ অর্থাৎ তবু মন মানে না’। উল্লেখ্য, ‘দিল হ্যায় কী মানতা নেহি’ আদতে পূজা ভাট ও আমির খান অভিনীত একটি ছবির নাম। মজা করেই পূজাকে জবাব দেওয়ার সময় কথার ভাঁজে তারই অভিনীত একটি ছবির নাম ব্যবহার করলেন এই কৌতুক-অভিনেতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.