ওকালতনামা জালিয়াতি করে ৩৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ

পিরোজপুর জেলা আদালত চত্বরে জাল ওকালতনামা বিক্রির সময় মিজান ও রেজাউল নামে দুই মহরাকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় এ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তফা কামাল বাদী হয়ে ১০ মার্চ পিরোজপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ১৫ মার্চ রিমান্ড আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত আসামীদের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গ্রেপ্রারকৃত মিজান (৩০) মঠবাড়িয়া উপজেলার পূর্ব সেনের টিকিকাটা গ্রামের আঃ লতীফ চৌকিদারের পুত্র এবং মোঃ রেজাউল (২৫) পিরোজপুর সদর উপজেলার একলাই জুজখোলা গ্রামের মোজাহার শেখ ওরফে মুজু’র পুত্র।

পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জা.মো. মাসুদুজ্জামান জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করেছে। ১৬ মার্চ থেকে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বাস ভঙ্গ করে প্রতারনার আশ্রয় নেয়।তারা পিরোজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শহিদুল হক পান্নার স্বাক্ষর জাল করে এবং আইনজীবী সমিতির নামে ভুয়া সিল ব্যবহার করে ওকালতনামা বিক্রি করে।

এজাহারনামীয় আসামীরা অজ্ঞাতনামা আসামীদের সহায়তায় পিরোজপুর বিভিন্ন আদালতে ও মঠবাড়িয়া চৌকিবারের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিভিন্ন মোকদ্দমায় জাল জালিয়াতি করা ওই ওকালতনামা বিক্রি করে। এতে বিভিন্ন বিচার প্রার্থীদের সাথে প্রতারনা করিয়া ৩৫০ টাকা মূল্যের ১০ হাজার ওকালতনামা ছাপাইয়া পিরোজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির ৩৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি সাধন করে।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.