September 26, 2022

বাংলাদেশ-ভারত আন্তঃদেশীয় যাত্রীবাহী ট্রেন আগামী ২৬ মার্চ থেকে চালু হয়ার কথা থাকলেও তা চালু হচ্ছে না। বাংলাদেশিদের পর্যটক ভিসা সড়ক পথে না দেওয়ায় এখনই তা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার সাহাদাত আলী।

রবিবার (২০ মার্চ) রেল মন্ত্রণালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এমনটাই জানানো হয়েছে। এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার সাহাদাত আলী।

তিনি বলেন, ভারতীয় রেলওয়ে ট্রেন চালুর প্রস্তাব দিলেও সড়ক ও রেলপথের যাত্রীদের পর্যটক ভিসা না দেওয়ায় এখনই তা সম্ভব হচ্ছে না। তবে ভিসা দেওয়া শুরু করলে ট্রেন চালু হবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে তিনটি যাত্রীবাহী ট্রেন চলে। ঢাকা-কলকাতা রুটে ২০০৮ সালে চালু হয় ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’। খুলনা-কলকাতা রুটে চলে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’। ঢাকা-জলপাইগুড়ি রুটে ‘মিতালি এক্সপ্রেস’। ২০২০ সালের ২৬ মার্চ মিতালি এক্সপ্রেস উদ্বোধন করা হলেও, তা যাত্রী পরিবহন শুরু করেনি। আর করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের ১৫ মার্চের ‘মৈত্রী’ এবং ‘বন্ধন’ নতুন করে চালু হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.