উপমহাদেশের প্রখ্যাত পীর হযরত দাদা হুজুর কেবলার ৮৪তম ওফাত দিবস আজ

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
উপমহাদেশের প্রখ্যাত পীর মুজাদ্দিদে জামান, কুতবুল আলম ও আমেরুশরিয়ত হযরত মাওলানা শাহ সুফি পীর মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিকী আল কোরাইশী (রহঃ) এর আজ (বৃহস্পতিবার) ৮৪তম ওফাত দিবস। ১৯৩৯ সালের ১৭ মার্চ বাংলা ১৩৪৫ ৩রা চৈত্র দাদা হুজুর কেবলা নামে খ্যাত পীর হযরত আবু বকর সিদ্দিকী দারুল ফানাহ হতে দারুল বাকা’য় পর্দা নিয়ে চলে যান। দাদা হুজুর কেবলার ওফাত দিবস উপলক্ষ্যে এপার বাংলা ওপার বাংলায় জিকির, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। দিবসটি পালনে জমিয়তে জাকেরীণ ঝিনাইদহ, খুলনা ও ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে মিলাদ মাহফিল শেষে সওয়াব রেসানী করা হবে। দাদা হুজুর কেবলা ১২৬৩ হিজরী মোতাবেক ইংরেজী ১৮৪৫, বাংলা ১২৬৫ সালে পশ্চিম বাংলার হুগলী জেলার জাঙ্গিপাড়া থানার অধীন ফুরফুরা শরীফে জন্ম গ্রহন করেন। তাঁর ওয়ালেদ সাহেব কেবলা হাজী আব্দুল মুক্তাদির (রহঃ) শিশু পুত্রের নাম রাখলেন আবুবকর। ইনি রাসুল পাক (সাঃ) এঁর প্রথম খলিফা আমিরুল মু’মেনিন হযরত আবুবকর সিদ্দিক (রাঃ) এঁর বংশধর। ফলে দাদা হুজুর পীর কেবলা ‘সিদ্দিকী’ উপাধীতে ভুষিত হয়ে থাকেন। দাদা হুজুর পীর সাহেব কেবলার বয়স যখন মাত্র ৯ মাস তখন তাঁর ওয়ালেদ সাহেব হাজী আব্দুল মুক্তাদীর (রহঃ) ইন্তেকাল করেন। আম্মাজান মোসাম্মাৎ মহাব্বতুন নিসার তত্বাবধানে তিনি লালিত পালিত হতে থাকেন। দাদা হুজুর পীর কেবলা ইসলামের প্রথম খলিফা হযরত আবুবকর সিদ্দিক (রাঃ) এঁর বংশধর হয়ে তিনি বা তাঁর বংশধরা সুদুর আরব ভুমি থেকে ফুরফুরা শরীফে আসেন। ওফাত দিবস পালনের প্রাক্কালে জমিয়তে জাকেরিণের মূখ্য নির্দেশক ন’হুজুর পীর কেবলা (রহঃ) পৌত্র ও পীর আল্লামা বাকী বিল্লাাহ সিদ্দিকী (রহ:) এর একমাত্র সাহেবজাদা পীরজাদা আল্লামা জবিহুল্লাহ সিদ্দিকী (মাদ্দাঃ) দাদা পীরের মত ও পথের উপর দৃঢ় থাকার জন্য তাঁর ভক্ত অনুরাগী ও মুরিদানদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.