ইউক্রেনে বাংলাদেশি নাবিক নিহতের ঘটনায় যা বলল রাশিয়া

বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) জাহাজ ‘বাংলার সমৃদ্ধি’ আজ বুধবার (৩ মার্চ ) ইউক্রেনের ওলভিয়া বন্দরে নোঙ্গর করা অবস্থায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার শিকার হয়। এ সময় ক্ষেপণাস্ত্রের আাঘাতে জাহাজটির নাবিক হাদিসুর রহমানের মৃত্যু হয়। হাদিসুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর সমবেদনা জানিয়েছে রাশিয়া।

এ বিষয়ে ঢাকায় অবস্থিত রুশ দূতাবাস তাদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জানায়, আমরা মৃত ব্যক্তির কাছের জনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। বন্দর থেকে বাংলাদেশি জাহাজটির নিরাপদ প্রস্থান নিশ্চিত করতে রাশিয়ার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানো হবে বলেও ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

রাশিয়া বাংলাদেশি নাগরিক হত্যার ঘটনা নিয়ে পারিপার্শ্বিকতা যাচাই করছে বলেও বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে তথ্যমতে বলা হয়েছে, রাশিয়ান ফেডারেশনের সশস্ত্র বাহিনীর কমান্ড নির্ভরযোগ্য তথ্যের ভিত্তিতে জানিয়েছে যে, পিছু হটার সময় ইউক্রেনের জাতীয়তাবাদীরা এলোপাতাড়ি গুলি চালায়, ইচ্ছাকৃতভাবে মানুষদের জিম্মি করে মানব ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে এবং বহুল প্রচলিত জঙ্গি কৌশল প্রয়োগ করছে। বিবৃতিতে বিশেষ সামরিক অভিযানের কারণে কোনো ধরনের মানবিক সংকট দেখা দিলে যোগাযোগের জন্য কিছু হটলাইন নাম্বার এবং একটি ইমেল ঠিকানাও দেওয়া হয়েছে। কোনো বেসামরিক ব্যক্তি ইউক্রেন ছাড়তে চাইলে, সে ব্যাপারে সহযোগিতার জন্যও এই হটলাইনে যোগাযোগ করা যাবে।

হটলাইন নাম্বারগুলো হচ্ছে +7 495 498-34-46, +7 495 498-42-11, +7 495 498-41-09 এবং ইমেল ঠিকানা হচ্ছে gumvs@mil.ru

অতঃপর, সিরামিকের কাঁচামাল ‘ক্লে’ পরিবহনের জন্য জাহাজটি তুরস্ক থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরের জলসীমায় পৌঁছায়। তবে যুদ্ধাবস্থা এড়াতে জাহাজটিকে সেখানে পৌঁছানোর পরই পণ্য বোঝাই না করে দ্রুত ফেরত আসার জন্য নির্দেশনা দেন শিপিং করপোরেশনের কর্মকর্তারা। শেষ মুহূর্তে বন্দরের পাইলট না পাওয়ায় ইউক্রেনের জলসীমা থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি বাংলাদেশের এই জাহাজ। ওই জাহাজে থাকা বাকি ২৮ জন ক্রু সদস্য অক্ষত আছেন।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.