ইউক্রেনের সামরিক ঘাঁটিতে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ৩৫

ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লভিভে অবস্থিত আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী ও নিরাপত্তা কেন্দ্রে বিমান হামলা ও ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে রাশিয়া। এ হামলায় অন্তত ৩৫ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরো অন্তত ১৩৪ জন।

রোববার লভিভের আঞ্চলিক গভর্নর ম্যাকসিম কোজিতস্কির বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে রবিবার (১৩ মার্চ) দেশটির স্থানীয় সময় ভোরে এই হামলা চালানো হয়।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, লিভভ শহরের ৩০ কিলোমিটার উত্তরপশ্চিমের জেলা ইয়াভোরিভে অবস্থিত এই সামরিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি। এটি পোল্যান্ডের সীমান্ত থেকে মাত্র ১২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ম্যাক্সিম কোজিৎস্কি বলেন, ইয়াভোরিভ ঘাঁটিতে রাশিয়ার বাহিনী ৩০ টির বেশি ক্রুজ মিসাইল ছুড়েছে।

হামলার বিষয়ে ইউক্রেন জানিয়েছে, ঘাঁটিটিতে বিদেশি সামরিক প্রশিক্ষকরা কাজ করতেন। তবে হামলার সময় সেখানে তারা কেউ ছিলেন কিনা তা স্পষ্ট নয়।

ইয়াভোরিভে এই ঘাঁটিতে রবিবার দুইটি বড় বিস্ফোরণ দেখা গেছে। ভোর ৫ টা ৪৫ মিনিটে এই ঘাঁটিতে রকেট হামলা শুরু হয়। খবর গার্ডিয়ানের।

আর রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রথমে সাইরেন বাজানো ১৯টি অ্যাম্বুলেন্স ইয়াভোরিভের সামরিক ঘাঁটির দিকে যেতে দেখা গেছে। এছাড়া পরবর্তীতে আরও সাতটি অ্যাম্বুলেন্স ওই ঘাঁটির দিকে যেতে দেখা যায়।

বার্তাবাজার/না. সা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.