আখাউড়ায় ওরশ উদযাপন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ঐতিহ্যবাহী শাহপীর কল্লা শহীদ (র.) মাজার শরীফের বার্ষিক ওরশ উদযাপন হতে যাচ্ছে। আগামী ১০ আগস্ট থেকে সপ্তাহ ব্যাপী ওরশ শুরু হবে। পৌরশহরের খড়মপুরের পূণ্যভূমিতে এ মহান ওলীর দরগাহ শরীফ। ওরশ উদযাপন উপলক্ষে শনিবার সকালে খড়মপুর মাজার শরীফ হল রুমে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাজার পরিচালনা কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি অংগ্যজাই মারমা। এসময় উপস্থিত ছিলেন মাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম (মিন্টু), কমিটির সদস্য ও পৌর কাউন্সিলর তাকদির খান খাদেম।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাজার পরিচালনা কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি অংগ্যজাই মারমা এবং মাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম (মিন্টু)।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাদের বক্তব্যে বলেন, প্রতি বছর ১০ আগস্ট থেকে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত ৭ দিন কল্লা শহীদ (র.) মাজার শরীফের বার্ষিক ওরশ উদযাপিত হয়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে বিগত ২০২০ ও ২০২১ সনে জনস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে ওরশ উদযাপন করা হয়নি। এ বছর করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকায় প্রশাসনের সম্মতিতে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরন করে ওরশ উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাজার কমিটি।

সুষ্ঠুভাবে ওরশ উদযাপনের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় প্রস্ততি নেয়া হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবিসহ বিভিন্ন বাহিনীর প্রায় ৪’শ কর্মকর্তা ও সদস্য আইনশৃঙ্খলা ও জনগণের নিরাপত্তায় দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া প্রায় ২০০ খাদেম স্বেচ্ছাসেবক ভক্ত-আশেকানদের সেবায় কাজ করবে। মাজার এলাকায় ৪০টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

কমিটির পক্ষ থেকে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করা হবে। সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হবে। জরুরী চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য মেডিকেল টিম নিয়োজিত থাকবে। ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম সার্বক্ষনিক মোতায়েন থাকবে। মাজার কমিটি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

তারা আরও বলেন, ওরশের ৭ দিন সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত্র পর্যন্ত ধর্মীয় আলোচনা, জিকির, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। ধর্মপ্রাণ মানুষ ইবাদত বন্দেগী করেন। আল্লাহর রহমত কামনা করে দোয়া পাঠ করেন।

হাসান/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.