October 1, 2022

পটুয়াখালীর বাউফলে হাতকড়া নিয়ে আবদুল্লাহ (১৮) নামের এক পুলিশের সোর্সের ঘুরে বেড়ানোর ঘটনায় এ.এস.আই কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২ মার্চ) রাতে তাকে জেলা পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়।

ঘটনার সত্যতার নিশ্চিত করে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আল মামুন বলেন, পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে তাৎক্ষণিক তাকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার দাশপাড়া গ্রামে মো. আবদুল্লাহ নামের এক তরুণ হাতকড়া নিয়ে বাহিরে ঘোরাফেরা করলে স্থানীয়রা তাকে আটক করে। পরে এএসআই শামীম তাকে ছেড়ে দিতে বললে স্থানীয়রা ঝামেলা এড়াতে আবদুল্লাহকে ছেড়ে দেন। এঘটনা নিয়ে গতকাল বার্তা বাজারসহ একাধিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে তোলপাড় শুরু হয়। ক্লোজড করা হয় এএসআই শামীমকে। তবে ওই সোর্স আবদুল্লার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

স্থানীয় বাবলু কাজী নামের এক যুবক জানান, আটককৃত যুবক আবদুল্লাহ ওই এলাকায় বাউফল থানার এএসআই শামীমের সোর্স হিসাবে পরিচিত ছিলেন। তাকে প্রায় হ্যান্ডকাপ নিয়ে ঘুরতে দেখা যেত এবং তিনি গ্রামের নিরীহ লোকজনদের গ্রেফতারের ভয়ভীতি দেখিয়ে সুবিধা নিত। মঙ্গলবার বিকালে ওই যুবক হ্যান্ডকাপসহ স্থানীয়দের হাতে আটক হওয়ার পর বিষয়টি ওসিকে অবহিত করা হয়।

বাউফল থানার ওসি আল মামুন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশে মঙ্গবার রাতেই এএসআই শামীকে পটুয়াখালী পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তবে সংযুক্তের কারণ তিনি জানেননা।

হান্নান/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.