October 1, 2022

শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও ছাত্রলীগ কর্তৃক শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপর অতর্কিত হামলার বিচারের দাবিতে মশাল মিছিল করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাতটায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপস্থিতে মশাল মিছিলটি প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

এর আগে বেলা ১১টা থেকে প্রশাসনিক ভবনের সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেন। এসময় শিক্ষার্থীরা ধর্ষণ ও ধর্ষণের ঘটনায় বিচারের দাবিতে অবরোধকারী শিক্ষার্থীসহ উপাচার্য ও শিক্ষকদের উপর ছাত্রলীগের ন্যাক্কারজনক হামলার বিচার দাবি করেন।

দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে চার দফা দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষার্থীরা। এই সময়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, হামলার পর গোপালগঞ্জর সকল স্তরের জনগণের ওপর থেকে তারা আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন। এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ না করলে এবং ধর্ষক ও হামলাকারীদের সঠিক বিচার না হলে, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছাত্রত্ব ও শিক্ষকতা ছেড়ে চলে যাবেন।

উল্লেখ্য , বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৯টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন। বিচারের দাবিতে গতকাল ভোর ৬ টা থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। ধর্ষকদের বিচার চাওয়ার জেরে আন্দোলরত শিক্ষার্থীদের জামাত-শিবির ট্যাগ দিয়ে ছাত্রলীগ ও স্থানীয়রা দুই দফা হামলা চালায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপর।

সাগর/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.