শৈলকুপার হাকিমপুর ইউপিতে জনপ্রিয়তার শীর্ষে কামরুজ্জামান জিকু

শৈলকুপা প্রতিনিধি ঃ
এক বার দুবার নয় পর পর ৪বার ইউপি চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করছে ঝিনাইদহের শৈলকুপার ৭নং হাকিমপুর ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি শিকদার কামরুজ্জামান জিকু। এবার তিনি লড়ছেন ৫ম বারের মতো । তিনি সদ্য প্রয়াত আওয়ামীলীগের উপজেলা সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন সোনা শিকদার ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার শেফালী বেগমের পুত্র। বর্তমান তিনি উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।
জনগণের কাছে বাবা ও মায়ের আকাশ চুম্বী জনপিয়তা সেইসাথে সাধারন মানুষের আস্থা ও রাজনীতি পরিবারের সন্তান হওয়ায় তাকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। তাই তিনি এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে ৪ বার নির্বাচিত হয়েছেন। সে এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রাম এর মানুষের আস্থার প্রতিক । ইতিমধ্যে পথসভা ও মতবিনিময় করছেন এ ইউনিয়ন পরিষদ হাকিমপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান জিকু। তিনি আবারও নির্বাচিত হয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাড়াবে ও ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ সম্পন্ন করবে এটাই ইউনিয়ন বাসির প্রত্যাশা। করোনা মহামারির সময় অবহেলিত এই এলাকার শত শত পরিবারকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল, সয়াবিনসহ খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন। হাকিমপুর ইউনিয়নের গরীব মানুষের মাঝে বাজারসহ নগদ অর্থ প্রদান করেছেন। তাই এবার তাকে ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণ নৌকার মাঝি হিসাবে দেখতে চাই।
চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে এলাকায় গণমানুষের মন জয় করেছেন নানা উন্নয়ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকে জানান, তিনি চেয়ারম্যান থাকার সময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কালভার্ট, পাকা সড়ক মসজিদ-মন্দিরসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। এছাড়াও রাতে দিনে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো তার ধর্ম।
হাকিমপুর ইউনিয়নের হরিহরা গ্রামের ফিরোজ বলেন, আমরা সারাজীবন সোনা শিকদারের সাথে দল করেছি । তিনি ছিলেন সাধারণ মানুষের আস্থার প্রতিক। বর্তমান আমরা তার স্মুতিকে ধরে রাখার জন্য তার ছেলেকে এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চাই।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান ইকু বলেন, আমার বাবা সারা জীবন মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। বর্তমান আমার মা জনগণের পাশে দাড়িয়েছে এভাবে আমরা সারাজীবন অসহায় মানুষসহ সাধারণ মানুষের মাঝে থেকে কাজ করতে চাই।
বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান জিকু বলেন. আমার বাবার আদর্শকে লালন করে মানুষের মাঝে থাকতে চাই। ইউনিয়নবাসির সুখে দুঃখে পাশে থেকে কাজ করতে চাই। আমি আওয়ামীলীগের প্রতিক পেলে আশা করি নির্বাচিত হবো এবং দলকে শক্তিশালী করার জন্য প্রয়োজনীয় সব কিছু করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.