October 5, 2022
एकदम नई Video मज...
एकदम नई Video मजा आ जाएगा

করোনায় ঝিমিয়ে পড়া মালয়েশিয়ার শিক্ষাখাতকে চাঙ্গা করতে আকর্ষণীয় সুযোগ সুবিধাসহ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণে ভিসা দিচ্ছে দেশটির ১৩ টি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়। দেশটিতে উচ্চ শিক্ষার পাশাপাশি জবসহ নাগরিকত্বসহ নানারকম অফারে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আকর্ষণ করার চেষ্টা করছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। কারণ মালয়েশিয়ার শত শত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অধিকাংশ শিক্ষার্থী বাংলাদেশের।

মঙ্গলবার (পহেলা মার্চ) দুপুরে কুয়ালালামপুর ইনফ্রাকচার বিশ্ববিদ্যালয় কুয়ালালামপুর এর কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান দেশটির ১৩ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা।

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা বলেন, বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা খুবই মেধাবী ও পরিশ্রমী তাই এই উচ্চ শিক্ষা কার্যক্রমে উৎসাহিত করতে এ মাসেই বাংলাদেশের ঢাকা, চট্রগ্রাম, খুলনা ও রাজশাহী শিক্ষা মেলা অনুষ্ঠিত হবে। সে মেলায় অংশগ্রহণ করে পছন্দমত ৩০০ টি উচ্চ শিক্ষার কোর্স গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছে। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে আগামী ১২ মার্চ ওয়েল পার্ক হোটেল চট্টগ্রাম, ১৪ মার্চ হোটেল ক্যাসেল সালাম খুলনা, ১৬ মার্চ ওয়ারিশান হোটেল রাজশাহী এবং ১৯ মার্চ সারিনা হোটেল ঢাকায় এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বিস্তারিত তথ্যের জন্যে এই লিংকে ক্লিক করুনঃ- শিক্ষামেলায় যোগ দিতে https://ift.tt/UpDF6yc

মালয়েশিয়া ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, ইউকে ও কানাডার বেশ কয়েকটি সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পরিপূর্ণ তথ্য নিয়ে এ শিক্ষামেলার এই আয়োজন করেছে এনএসএস সল্যুশন। আগ্রহী শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ মেলায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে আয়োজক প্রতিষ্ঠানটি। শিক্ষার্থীরা সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে কথা বলতে পারে এবং অবিলম্বে অফার লেটার পেতে পারে। ইভেন্ট চলাকালীন কোন আবেদন ফি প্রয়োজন নেই।

কুয়ালালামপুরস্থ এনএসএস’র হেড অব মার্কেটিং সবুজ হোসেন বলেন, দেশের খরচে বিদেশে মানসম্মত পড়াশোনার সুযোগ তৈরি হবে এ শিক্ষামেলার মাধ্যমে। এছাড়া শিক্ষার্থীরা তাদের অবস্থান সম্পর্কেও একটা ধারণা পাবে।

চারটি শহরে চার দিনব্যাপী এ শিক্ষামেলায় বিশেষ আকর্ষণ হিসাবে স্পট অ্যাডমিশন নিলেই উপহার হিসেবে ১ মাস ফ্রী থাকার ব্যাবস্থা ছাড়াও থাকছে ফ্রি বিমান টিকিট। মেলায় থাকছে আইএলটিএস ছাড়া তাৎক্ষণিকভাবে ভর্তির সুযোগ, রয়েছে স্কলারশিপও।

এছাড়া শিক্ষামেলায় আরও থাকছে বিনামূল্যে প্রবেশের সুবিধা, ডকুমেন্ট অ্যাসেসমেন্ট, টিউশন ফিসহ অন্যান্য খরচের ধারণা, বিদেশে পড়াশোনাকালীন বসবাসের জন্য কেমন খরচাদি হবে তার ধারণা, পার্ট-টাইম জব করা যাবে কি-না সে সম্পর্কে তথ্য, স্কলারশিপের ওপর বিস্তারিত আলোচনা, পড়াশোনা শেষে পি.আর. (স্থায়ী বসবাস) সম্পর্কে তথ্যাদি এবং সরাসরি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিদের সাথে সাক্ষাতের সুযোগ। সংবাদ সম্মেলনে ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া , ইউনিভার্সিটি টেকনোলজি মালয়েশিয়া, ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইউনিভার্সিটি কুয়ালালামপুর, ইউনিভার্সিটি সেলানগর, লিমকোকউইং ইউনিভার্সিটি এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটি, মাল্টিমিডিয়া ইউনিভার্সিটি ও ইউনিভার্সিটি অব সাইবারজায়া সহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ায় বিদেশী শিক্ষার্থীদের একটা বড় অংশ বাংলাদেশি। প্রতি বছর কয়েক হাজার শিক্ষার্থী বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় পড়াশোনার উদ্দেশ্যে আসে। তবে করোনার প্রাদুর্ভাবে লকডাউনের মাঝে প্রায় দু’বছর নতুন করে বিদেশী শিক্ষার্থী আসতে পারেনি। মূলত এ শূন্যতা পুষিয়ে নিতে সহজ শর্তে মালয়েশিয়ায় উচ্চ শিক্ষার সুযোগ দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।

কুয়ালালামপুরে প্রেস কনফারেন্স টি আয়োজন করেছেন এনএসএস সলিউশন। ভর্তি ও ভিসা সংক্রান্ত যেকোন তথ্যের জন্য ঢাকাস্থ ধানমন্ডি মমতাজ প্লাজায় এনএসএস সলিউশন এ যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন এনএসএস এর পক্ষ থেকে মিস্টার সবুজ, ১৩ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধি এবং বাংলাদেশি প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ।

আশরাফুল/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.