যশোরের লেবুতলা কেন্দ্রে ১৮টি টিয়ারসেল নিক্ষেপ, ৫ পুলিশ আহত

এস আর নিরব যশোরঃ
যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট গণনার সময় এক মেম্বার প্রার্থীর ব্যালট পেপার ফেলে দেওয়াকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) লেবুতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সন্ধ্যায় ভোট গণনার সময় কেন্দ্রের বাইরে বুথের জানালার পেছনে ঘুড়ি প্রতিকের প্রার্থীর অনেকগুলো ব্যালট পড়ে থাকার ঘটনায় তুমুল হৈচৈ শুরু হয়। বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার সুযোগ নিয়ে মোরগ প্রতিকের এজেন্টরা ঘুড়ি প্রতিকের ১শ’ ব্যালট জানালা দিয়ে ফেলে দেয় বলে অভিযোগ তোলা হয়। ওই ব্যালট উদ্ধারের পর ঘুড়ি প্রতিকের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় লিপ্ত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকে বিক্ষুব্ধরা। এ সময় ৫ পুলিশ সদস্য আহত হন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ১৮টি টিয়ারসেল ছোড়ে পুলিশ। একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম জানান, পুলিশ পরিস্থিতি শক্তভাবে মোকাবেলা করে নিয়ন্ত্রণে এনেছে। পুলিশ সদস্য আহতের বিষয়টি তিনি স্বীকার করে তিনি জানান, আহতের ঘটনা মারত্মক নয়।

এদিকে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এ কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ঘুড়ি প্রতিকের প্রার্থী আব্দুল ওয়াদুদ ৪২৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মোরগ প্রতিকের রাশেদুল ইসলাম পেয়েছেন ৩৭২ ভোট।

Leave a Reply

Your email address will not be published.