October 1, 2022

এস আর নিরব যশোরঃ
যশোর সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সেপ্টিট্যাংক থেকে এক নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।কয়েক দিন ধরে বাথরুম থেকে দূর্গন্ধ বের হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীরা বলছে, কিন্তু ইদুর আর ছারপোকা মরেছে মনে করে এত দিন আমলে নেয়নি স্কুলের শিক্ষকরা। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে প্রচন্ড দূর্গন্ধ বের হচ্ছে জানতে পেরে প্রধান শিক্ষক শিবপদ বিশ্বাস বিদ্যালয়ের দপ্তরী আলমগীরকে দিয়ে সেপ্টি ট্যাংকের ঢাকনা সরিয়ে অর্ধগলিত মানুষের লাশের মত দেখতে পান।

কে বা কারা এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। যশোর সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সেপ্টি ট্যাংকের ভিতর মৃত মানুষের লাশের খবর পেয়ে নরেন্দ্রপুর পুলিশ ফাঁড়ির আইসি সুপ্রভাত মন্ডল ঘটনাটি যশোর কোতয়ালী মডেল থানায় অবহিত করেন ও ডোম এনে লাশ তোলার ব্যবস্থা করেন।

লাশ তোলার পর দেখা যায় এটা একটি নারীর লাশ। এ সময় হাজার হাজার নারী পুরুষ এই নিশংস কর্মকান্ডের ফল দেখার জন্য ভিড় জমায়। একটি সূত্র ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানা যায়, এই মহিলা নরেন্দ্রপুর দফাদার ইটের ভাটায় শ্রমিক হিসাবে কাজ করত। এ ভাটার সরদার ইসমাইল জানায়, এই মহিলার নাম ফাতিমা খাতুন (৩৫), তার স্বামির নাম জাহাঙ্গীর। তারা দুইজন এই ভাটার শ্রমিক ছিলেন এবং গত ২০ থেকে ২৫ দিন পূর্বেই বৃষ্টির কারনে ভাটার কার্যক্রম বন্ধ থাকায় তারা বাড়িতে চলে যায়। পরে জানতে পারে এই মহিলা নিখোজ হয়েছে। এ মহিলা খুলনা তালা থানার সাত পাকিয়া গ্রামের আনছার আলীর মেয়ে। সে দুটি কন্যা সন্তান এর জননী।

খবর পেয়ে কোতয়ালী মডেল থানার ওসি তাজুল ইসলামসহ ডিবি, সিআইডি, পিবিআই কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.