October 6, 2022

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার সৌদি প্রবাসী শহিদুল ইসলামের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় মামলা হয়েছে। রবিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ওই প্রবাসী নিজেই বাদী হয়ে মঠবাড়িয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

প্রবাসী শহিদুল ইসলাম ধানিসাফা ৩ নং ওয়ার্ড উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের মৃত আঃ মজিদ মিয়ার পুত্র।

ডাকাতি মামলায় বাহাদুর ও ফজলু নামে দুই জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৭ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। বাহাদুর (৪০) উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের নূর মোহাম্মদ মাতুব্বরের পুত্র এবং ফজলুল হক (৬০) ওই একই এলাকার মৃত মোতাহার আলী হাওলাদারের পুত্র। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

ভুক্তভোগী পরিবারের দাবি, পূর্ব বিরোধের জের ধরে শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে প্রতিপক্ষরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনার সময় পরিবারের ৭ সদস্যের মধ্যে ৬ জনকে জিম্মি করে পিছমোড়া করে দুই হাত বেঁধে ফেলে। এ সময় ডাকাত দলের কয়েকজন সদস্য তাদেরকে মারধর করে।

ডাকাতদল চলে যাওয়ার পর অবমুক্ত থাকা ৯ বছরের শিশু হাতের বাঁধ খুলে দেয়। এরপর তাদের ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা জড়ো হতে থাকে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ডাকাতদল রামদা ও ছুড়ি দেখিয়ে ওই সৌদি প্রবাসির পরিবারকে জিম্মি করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ ১৮ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা লুন্ঠন করে।

মঠবাড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইব্রাহীম, অফিসার ইনচার্জ মুহাঃ নুরুল ইসলাম বাদল, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আঃ হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাঃ নুরুল ইসলাম বাদল জানান, ডাকাতির ঘটনায় মামলা হয়েছে। তদন্ত অব্যাহত আছে।

শাহজাহান/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.