October 1, 2022

ইউক্রেন সীমান্তে থাকা রুশ সেনারা ফেব্রুয়ারিতে আগ্রাসন চালাতে পারে বলে। এমন ‘স্পষ্ট সম্ভাবনা’ রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমায়ার জেলেনস্কির সঙ্গে এক টেলিফোন আলাপে এই মন্তব্য করেছেন বাইডেন। রাশিয়ার মূল নিরাপত্তা দাবি প্রত্যাখ্যান হওয়ার পর মস্কো জানিয়েছে, সংকট নিরসনের সম্ভাবনা খুবই কম।
ইউক্রেন সীমান্তে দীর্ঘদিন ধরেই বিপুল সংখ্যক সেনাসদস্য মোতায়েন করে রেখেছে প্রতিবেশী দেশ রাশিয়া। যে কোনও মুহূর্তে রুশ সেনারা দেশটিতে আক্রমণ করতে পারে বলে আশঙ্কা করছে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো। যদিও এমন কোনও পরিকল্পনার কথা বরাবরই অস্বীকার করে আসছে মস্কো। সংকট নিরসনে আলোচনার উদ্যোগ নিলেও মস্কোর নিরাপত্তা দাবি না মানায় তা ব্যর্থ হয়।

হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, টেলিফোন আলাপের সময় প্রেসিডেন্ট বাইডেন আবারও রুশ আগ্রাসনের মুখে যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের ইউক্রেনকে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অপরদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমায়ার জেলেনস্কি বলেন, তারা উত্তেজনা নিরসনে সাম্প্রতিক কূটনৈতিক উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা করছেন এবং ভবিষ্যতে যৌথ তৎপরতার বিষয়ে সম্মত হয়েছেন।

এদিকে, মস্কো যদি ইউক্রেনে আক্রমণ করে তাহলে রাশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ পাইপলাইন বিচ্ছিন্ন করার হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানান, রাশিয়া যদি হামলা চালায় তাহলে নর্ড স্ট্রিম-২ পাইপলাইন সামনে আগাবে না। ১ হাজার ২২৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই পাইপলাইনটি নির্মাণ করতে সময় লেগেছে ৫ বছর এবং ব্যয় হয়েছে ১ হাজার ১০০ কোটি ডলার। এটি দিয়ে এখনও গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.