সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

কক্সবাজারের টেকনাফে পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রী, মাইকে ঘোষণা দিয়ে তালাক দিলেন স্বামী এমন অভিযোগ উঠেছে। এমন কর্মকান্ডে এক প্রবাসীর স্ত্রী তালাকের ঘটনা নিয়ে তোলপাড় চলছে। এদিকে মাইকে তালাক দেওয়ার ভিডিও ফেসবুকে আপলোড হলেই মুহূর্তে নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য শুরু হয়। গতকাল সোমবার টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের খারাংখালী নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় বিষয়টি নিয়ে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মওলানা নুর আহমদ আনোয়ারী জানান- ‘ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি এবং এলাকার ইউপি সদস্যরা মিলে বেশ কিছুদিন ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছি মীমাংসা করে দিতে।

অপরদিকে এলাকাবাসী জানায়, ওই এলাকার বাসিন্দা ছৈয়দ নুর ২০০৩ সালে একই গ্রামের ওই নারীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর অর্থনৈতিক টানাপড়েনের কারণে ছৈয়দ নুর ২০১৪ সালে পাড়ি জমান সৌদি আরব। দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে থাকার সুবাদে পাশের বাড়ির যুবক মানুনুর রশিদের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন তার স্ত্রী। পরকীয়ার ঘটনা নিয়ে গ্রামে বেশ কয়েকবার সালিসি বৈঠকেরও আয়োজন করা হয়। কিন্তু কোনো মীমাংসা হয়নি।

প্রবাসী স্বামী ছৈয়দ নুর গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে জানান, ‘ঘটনা জেনে আমি তাকে প্রথমে বিদেশ থেকেই ভালো হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলাম। কিন্তু আমার স্ত্রী পরকীয়ার পথ থেকে সরেনি। ’ তিনি বলেন, পাঁচ মাস আগে দেশে ফেরেন। ঘরে এসে দেখেন প্রবাস থেকে পাঠানো একটি টাকাও নেই। যে ভাঙা ঘর রেখে প্রবাসে গিয়েছিলেন সে রকমই রয়ে গেছে। টাকা-পয়সার হিসাব চাইলে পরকীয়া প্রেমিক মামুনসহ স্ত্রী তাকে হত্যার হুমকি দেয়। এমনকি স্ত্রী ও প্রেমিক মামুন তাকে কয়েকবার মারধরও করেছে। প্রবাস থেকে আসার পরও স্ত্রী তার স্বামীকে নিজ ঘরে ঢুকতে দেয়নি। সেই ঘরেই ছৈয়দ নুরের স্ত্রী তার প্রেমিককে নিয়ে বসবাস করেন।

পরে আনুষ্ঠানিকভাবে স্ত্রীকে স্বামী ছৈয়দ নুর তালাক দেন। কিন্তু স্ত্রী স্বামীর ঘর ছাড়তে নারাজ। গ্রামের লোকজনও চেষ্টা করেছে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে স্বামীর ঘর ছাড়তে। কিন্তু স্ত্রীকে ঘর থেকে বের করতে পারে না। শেষ পর্যন্ত গতকাল খারাংখালী স্টেশনে মাইক নিয়ে সমাবেশের আয়োজন করেই প্রবাসী ছৈয়দ নুর তার স্ত্রীকে কয়েক শ গ্রামবাসীকে সাক্ষি রেখে তালাক প্রদান করেন।

ছৈয়দ নুর জানান, শেষ পর্যন্ত গ্রামবাসীর চাপে সন্ধ্যার দিকে স্ত্রী তালাক নিয়ে তার (ছৈয়দ নুর) ঘর ছেড়েছে। তাদের সংসারে চারজন ছেলে সন্তান রয়েছে। জ্যেষ্ঠ সন্তানের বয়স ১৬ বছর।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.