সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে ব্র্যাক মাঠকর্মী রনধীর তালুকদার (৩৪) এর মৃত্যুর ঘটনায় কুমুদগঞ্জ ব্র্যাক শাখার ম্যানেজার কাজী মঞ্জুরুল হক (৫০) কে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা করা হয়েছে। শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) মামলা দায়ের করেন নিহত রনধীর তালুকদারের স্ত্রী স্বপ্না রানী সরকার (২৭)।

রনধীর সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার মৃত কৃষ্ণধন তালুকদারের ছেলে। কাজের সুবাদে তিনি দুর্গাপুরে থাকতেন। অভিযুক্ত ম্যানেজার কাজী মঞ্জুরুল হক ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ থানার ঘাগড়াপাড়া গ্রামের মৃত সাবজল কাজীর ছেলে।

মামলার বিবরন থেকে জানা যায়, রণদীর উপজেলার বাকলজোড়া ইউনিয়নের কুমুদগঞ্জ ব্র্যাক শাখায় মাঠকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। এই সুবাদে তিনি ওই ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের বাচ্চু মিয়ার বাসায় ভাড়া থাকতেন। প্রতিদিনের মতো কাজ শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে বাসায় আসেন রণদীর। এরপর পাশের বাসার একজন তাঁর ঘরে এসে দেখতে পান রণদীরের দেহ ঘরের ফ্যানের রডের সঙ্গে ঝুলছে। এই দৃশ্য দেখে তিনি চিৎকার দিলে স্থানীয়রা এসে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে রাতে থানায় নিয়ে আসে।

রনধীরের বিছানা থেকে পুলিশ একটি চিরকুট পায় যাতে লিখা ছিলো “আমার মৃত্যুর জন্য ম্যানেজার দায়ী”।

অভিযুক্ত ম্যানেজার কাজী মঞ্জুরুল হকের মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

দুর্গাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মীর মাহাবুবুর রহমান জানান, রনধীরের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। একটি চিরকুট জব্দ করা হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

রাজেশ/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.