উত্তরাখণ্ডে প্রবল বৃষ্টি-বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যে তিন দিন ধরে চলা ভারি বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট বিপর্যয়ে অন্তত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া আরো অনেকে ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পুশকর সিং ধামী বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে। বাড়ি-ঘর, সেতু ইত্যাদি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উদ্ধার অভিযান পরিচালনার জন্য সেনাবাহিনীর তিনটি হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হবে।

সামাজিক যোগাযোগামধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে পাহাড়-পর্বতে সমৃদ্ধ এই রাজ্যটিতে গত ২৪ ঘণ্টার বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট বন্যায় ডুবে গেছে সড়ক, বাড়িঘর। ভেঙে পড়েছে অনেক সেতুও।

ভারতের আবহাওয়া দফতরের তথ্য অনুযায়ী, অক্টোবর মাসে উত্তরাখণ্ডে যেখানে ৩০ দশমিক ৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়, সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যজুড়ে বৃষ্টিপাত হয়েছে ১২২ দশমিক ৪ মিলিমিটার।

ভারতের জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা বাহিনী (এনডিআরএফ) জানিয়েছে, উদ্ধার ও ত্রাণ অভিযান পরিচালনা করছে সেনাবাহিনী ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলো। ইতিমধ্যে বন্যা কবলিত বিভিন্ন এলাকা থেকে ৩০০ জনেরও বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। রাজ্যজুড়ে উদ্ধারকারী বাহিনীর ১৫টি দল সক্রিয় আছে বলে জানিয়েছে ভারতের বার্তাসংস্থা এএনআই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.