সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

পিরোজপুরে জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা চলাকালে দলটির সাবেক নেতা ও জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি জসিম উদ্দিন খানের বাসভবনে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এসময় তার বাসভবনের সামনের রাস্তায় থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

শনিবার (৫ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পিরোজপুর শহরের পুরাতন পৌরসভা রোড়ে পরপর দুই দফায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলের প্রায় ৩০০ গজ দূরে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা চলছিল। সভায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিমসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ইফতেখার মাহামুদ সজলের অফিসেও হামলা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, জসিম উদ্দিন খান এবং ইফতেখার মাহামুদ সজল উভয়ই পিরোজপুর-১ আসনের এমপি এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের অনুসারী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ছাত্রলীগের ব্যানারে একটি গ্রুপ মিছিল নিয়ে পুরাতন পৌরসভা রোড দিয়ে যাওয়ার সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য এবং জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি জসিম উদ্দিন খানের বাসা লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ সময় তারা রাস্তায় থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করে। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পরে জেলা যুবলীগের ব্যানারে আরও একটি মিছিল ওই সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় আবারও জসিম খানের বাসায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। মিছিলকারীরা বাসার মধ্যে ঢুকে হামলা চালানোরও চেষ্টা করে।

এ সময় জসিম খানের বাসার সামনে থাকা তার কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে মিছিলকারীদের বাকবিতণ্ডা এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে জসিম খানের সমর্থক স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৮নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক বাদশা হাওলাদার, বাস শ্রমিক জব্বার খানসহ তিন চার জন আহত হন।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রাসেল সিকদার জানান, বেলা সাড়ে ১১টার পরে পর পর দুই দফা হামলা করা হয় জসিম উদ্দিন খানের বাসায়। মিছিল সহকারে এসে বাসায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এসময় বাসার সামনে থাকা আটটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। হামলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বাদশা হাওলাদারসহ তিন চার জন আহত হন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য জসিম উদ্দিন খান বলেন, পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা উপলক্ষে তিন দিন আগে ঢাকা থেকে পিরোজপুরে এসেছিলাম। শনিবার সকালে বর্ধিত সভায় আসা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম ভাইয়ের সঙ্গে সার্কিট হাউসে দেখা করে পুরাতন পৌরসভা রোডের বাসায়ই অবস্থান করছিলাম। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ব্যানারে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়ালের অনুসারীরা পর পর দুইবার আমার বাসায় হামলা চালান। ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এ সময় আমার লোকজনের বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। মিছিলকারীদের হামলায় বাস শ্রমিকসহ তিন চার জন কর্মী আহত হয়েছেন। হামলার ঘটনাটি কেন্দ্রীয় নেতা আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম ভাইকে জানানো হয়েছে। তার নির্দেশনা মতো পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

তবে জসিম উদ্দিন খানের বাসায় হামলা বা ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা অস্বীকার করে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান মানিক বলেন, জসিম খানের বাসায় কে বা কারা হামলা বা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে, তা আমাদের জানা নেই। ওই ঘটনার সঙ্গে যুবলীগ-ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মী জড়িত নন।

নাছরুল্লাহ/বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.