September 28, 2022

সাতক্ষীরা জেলা আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে বড় ভাই কর্তৃক ছোট ভাইয়ের সম্পত্তি জোর পূর্বক দখলের অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগকারী মোঃ আছাদুর রহমান (৫৬) বলেন, পৈত্রিক ওয়ারিশ অনুযায়ী আমরা তিন ভাই একত্রে বসবাস করে আসছি। আমার মেঝভাই গত ২০১৬ সালের ১০ই ডিসেম্বর মৃত্যু বরণ করলে জমি নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয়। কারণ আমার আপন মেজ ভাইয়ের বিবাহ না থাকায় এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ওয়ারিশ সূত্রে দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পত্তি ভোগ দখলের সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু আমার বড় ভাই মোঃ আরশাফ উদ্দীন গাজী (৭০) সকলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে নিজেই সকল সম্পত্তি ভোগ দখলের চেষ্টা করছে অনেক আগে থেকেই এবং আমার বড় ভাইয়ের ছোট ছেলে মোঃ আকরাম হোসেন (৩০) সরকারী কর্মকর্তা হওয়ায় তার ক্ষমতার দাপটে ইতিপূর্বে একাধিকবার আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি ও আমার বড় ছেলে আরাফাত হোসেন (২৫) কে কয়েকবার শারিরীক নির্যাতন করে। এমনকি মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দিবে বলে বিভিন্ন হয়রানি মূলক হুমকি দিতে থাকে।

এক পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে গ্রাম্য শালিস বসে। কিন্তু তাতে সমাধান না পেয়ে গত বছরের ২৪ নভেম্বর স্থানীয় থানায় সাধারণ ডায়রি করি। যাহার ডায়রি নং -১০৩২ । থানায় সাধারণ ডায়রি করলে উক্ত ডায়রির তদন্তের জন্য স্থানীয় গ্রাম্য আদালতের প্রেরণ করে থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। কিন্তু অভিযুক্তরা গ্রাম্য আদালতের সালিশ না মেনে সাতক্ষীরা সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং দে:-৫২/২০। আদালতে উভয় পক্ষের তদন্তের প্রতিবেদনের সাপেক্ষে উক্ত জমির উপর বেড়া দিয়ে বিভক্ত করে থাকে এবং সেখান থেকে আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবে আমরা ভোগ দখল করে আসিতেছি।

কিন্তু মামলা চলাকালে আমার বড় ভাই মোঃ আরশাফ উদ্দীন ছেলেরা উগ্র প্রভাবশালী হওয়ায় ভাড়াটিয়া গুন্ডাবাহিনী দ্বারা ৪মার্চ শুক্রবার সময় সকালে বেড়া তুলে দিয়ে পুরো সম্পত্তি জোর পূর্বক দখল করে নেয়। আমরা সরল ও আইনের প্রতিশ্রদ্ধাশীল হওয়ায় তাদের সাথে কোন প্রকার সংঘর্ষে যায়নি। বর্তমানে আমার নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। আমাদের জমি ফিরে পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এদিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জোরপূর্বক জমি দখলের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে জানিয়েছেন ভূক্তভোগী পরিবারটি।

খায়রুল/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.