আনন্দ ঘন পরিবেশের মধ্যদিয়ে ঝিকরগাছার ১১টি ইউপি নির্বাচনে আ’লীগ ৮ ও স্বতন্ত্র ৩

আফজাল হোসেন চাঁদ :

আমার ভোট আমার অধিকার এই স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ নিবাচন কমিশনের অধিনে আনন্দ ঘন পরিবেশের মধ্যদিয়ে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ৮ ও স্বতন্ত্র ৩ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮নং নির্বাসখোলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে খাইরুজ্জামানকে ভোটে হারানোর জন্য ভোট কেন্দ্রে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নজরুল ইসলাম @ শর্টগান নজরুল গোলযোগ সৃষ্টি করলে স্থানীয় সাধারণ জনতার সাথে সামান্য হাতাহাতির একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাৎক্ষনিক আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পৌছেদেন জানা যায়।
ঝিকরগাছা উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারণ জনতার দেওয়া সুষ্ঠ ভোটে ১নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার ২০হাজার ৭৭জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৩ হাজার ৯শত ৮৪টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আমিনুর রহমান আমিন ৪হাজার ৪শত ৬৬, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকে বদরউদ্দিন বিল্টু ২হাজার ৭শত ০৬, মটরসাইকেল প্রতীকে আতাউর রহমান ঝন্টু ২হাজার ১শত ২২, ঘোড়া প্রতীকে মইয উদ্দিন ২শত ৭৯, টেবিল ফ্যান প্রতীকে শহিদুল ইসলাম ৯শত ৮৭, আনারস প্রতীকে শাহেদুর রহমান ২হাজার ৯শত, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে সানোয়ার রহমান ৫শত ২৪ ভোট পেয়েছেন। গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের আমিনুর রহমান আমিন। ২নং মাগুরা ইউনিয়নে মোট ভোটার ২১হাজার ৮শত ১৪জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৬ হাজার ৬টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আব্দুর রাজ্জাক ৯হাজার ৫শত ২১, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে একেএম গিয়াস উদ্দীন ৯০ (২৮ অক্টোবর ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থন করন), মটরসাইকেল প্রতীকে ওবায়দুর রহমান ৬হাজার ৩শত ৯৫ ভোট পেয়েছেন। মাগুরা ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের আব্দুর রাজ্জাক। ৩নং শিমুলিয়া ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৬হাজার ৪শত ৩৯জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১২ হাজার ৪শত ১২টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে মতিয়ার রহমান সরদার ৯হাজার ৪শত ১৯, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে জহুরুল হক ২হাজার ৩শত ৫১, মটরসাইকল প্রতীকে আশরাফুজ্জামান আশা ১শত ২১, জাতীয়পাটি’র লাঙ্গল প্রতীকে ৫৯, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে আলমগীর হোসেন ৪শত ৬২ ভোট পেয়েছেন। শিমুলিয়া ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মতিয়ার রহমান সরদার। ৪নং গদখালী ইউনিয়নে মোট ভোটার ২১হাজার ৭শত ৩৬জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৫ হাজার ৮শত ৩৭টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আশরাফ উদ্দিন ২হাজার ৯শত ১৩, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকে শাহাজান আলী ৫হাজার ২শত ৮, আনারস প্রতীকে প্রিন্স আহমেদ ৫হাজার ১শত ১৪, মটরসাইকেল প্রতীকে শহিদুল ইসলাম ১হাজার ৬৭, ঘোড়া প্রতীকে শফিউল্লাহ খান ১হাজার ৯৭, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে আঃ আজিজ ৪শত ৩৮ ভোট পেয়েছেন। গদখালী ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকের শাহাজান আলী। ৫নং পানিসারা ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৮হাজার ১শত ৪০জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৩ হাজার ৩শত ৫১টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে নওশের আলী ৬হাজার ২শত ৩৩, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে জাকির হোসেন ৬হাজার ৬শত ৯৫, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে আমিনুর রহমান ৪শত ২৩ ভোট পেয়েছেন। পানিসারা ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের জাকির হোসেন। ৬নং ঝিকরগাছা ইউনিয়নে মোট ভোটার ২২হাজার ২শত ৬৬জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৬ হাজার ৫৬টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আমির হোসেন ৯হাজার ৪শত ৩০, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে বারিক ৫হাজার ৫৮, মটরসাইকল প্রতীকে শহিদুল ইসলাম ৮৪ (৩০ অক্টোবর ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থন করন), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে আলাল উদ্দিন ১হাজার ৪শত ৮৪ ভোট পেয়েছেন। ঝিকরগাছা ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের আমির হোসেন। ৭নং নাভারণ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৪হাজার ৪শত ২০জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৬ হাজার ৭শত ৯৬টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে শাহাজাহান আলী ১০হাজার ৯শত ২৬, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকে জিয়াউল হক ৫হাজার ৬শত ৯৮, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে সহিদুল ইসলাম ১শত ৭২ ভোট পেয়েছেন। নাভারণ ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের শাহাজাহান আলী। ৮নং নির্বাসখোলা ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৮হাজার ৭শত ১০জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৪ হাজার ৫শত ১৭টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে খাইরুজ্জামান ৯হাজার ৮শত ৮১, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে নজরুল ইসলাম ৩হাজার ৪শত ৭৫, মটরসাইকেল প্রতীকে লিয়াকত আলী ১হাজার ৮৫, জাতীয়পাটি’র লাঙ্গল প্রতীকে মিলন হোসেন ৭৬ ভোট পেয়েছেন। নির্বাসখোলা ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের খাইরুজ্জামান। ৯নং হাজিরবাগ ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৭হাজার ৩শত ৬৯জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১২ হাজার ৬শত ৫৫টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে আতাউর রহমান মিন্টু ৬হাজার ৯শত ৮৬, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে নুরুল আমিন মধু ২শত (১০ নভেম্বর উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থন করন), মটরসাইকেল প্রতীকে মিজানুর রহমান ৪হাজার ৮শত ৪২, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে আবু রায়হান ৬শত ২৭ ভোট পেয়েছেন। হাজিরবাগ ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের আতাউর রহমান মিন্টু। ১০নং শংকরপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার ২০হাজার ৮০জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৫ হাজার ৫শত ৫৫টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে গোবিন্দ চন্দ্র চ্যাটার্জী ৯হাজার ২শত ৯৯, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকে নিছার উদ্দীন ৫হাজার ৭শত ৭৭, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে জামাল উদ্দীন ৪শত ৭৯ ভোট পেয়েছেন। শংকরপুর ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের গোবিন্দ চন্দ্র চ্যাটার্জী। ১১নং বাঁকড়া ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৮হাজার ২শত ২৫জন। বৈধ ভোট পড়েছে ১৩ হাজার ৪শত ১৩টি। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে মোঃ নিছার ৩হাজার ৪শত ৫৭, অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মটরসাইকেল প্রতীকে আনিস উর রহমান ৬হাজার ৯শত ৪৭, চশমা প্রতীকে মতিউর রহমান ১শত ০১, আনারস প্রতীকে জামির হোসেন ২হাজার ৬শত ৯৮, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাতপাখা প্রতীকে নাজমুল কবীর ২শত ১০ ভোট পেয়েছেন। বাঁকড়া ইউনিয়নে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের আনিস উর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.