অস্ট্রিয়ায় স্বেচ্ছামৃত্যুর আইন পাস

অস্ট্রিয়ায় এতদিন নাগরিকদের স্বেচ্ছামৃত্যু নিষিদ্ধ ছিল। সেই নিষেধাজ্ঞার সময়সীমা শেষ হতে চলেছে। দেশটির পার্লামেন্টে নতুন বিল পাস হলো। যাতে স্বেচ্ছামৃত্যুকে শর্তসাপেক্ষে দেওয়া হলো অনুমতি। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে জার্মান ভিত্তিক গণমাধ্যম ডয়েচে ভেলে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে অস্ট্রিয়ার আদালত রায় দিয়েছিলেন, আগের আইন মানবাধিকার বিরোধী।

প্রতিবেদনে বলা হয় , আইনটির নাম হলো ‘অ্যাসিসটেড সুইসাইড অ্যাক্ট’। এতে বলা হয়েছে, ১৮ বছরের বেশি বয়সীরাই স্বেচ্ছামৃত্যু বরণ করতে পারবেন। তবে এই সুযোগ তারাই পাবেন যাদের দেহে জটিল রোগ আছে যা আর ভালো হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

আইন অনুযায়ী স্বেচ্ছামৃত্যু বরণ করতে চান, তাকে আইনজীবীর কাছে বা নোটারির কাছে বিষয়টি জানাতে হবে।

প্রতিটি ক্ষেত্রে দুজন চিকিৎসক আবেদনটি বিচার করে দেখবেন। রোগী নিজের ইচ্ছায় স্বেচ্ছামৃত্যুর পথ বেছে নিচ্ছেন কি না, তাও যাচাই করে দেখবেন তারা। আবেদনকারীদের অন্তত ১২ সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা ধরনের আইন চালু আছে। সাধারণত অসুস্থতার কারণে জীবনসংকটে থাকা রোগীদের স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু এ নিয়ে বিতর্কের কোনো শেষ নেই। সুইজারল্যান্ড, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, লুক্সেমবুর্গে স্বেচ্ছামৃত্যু স্বীকৃত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.